প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক পদে সবচেয়ে বড় নিয়োগ, পদ সাড়ে ৩২ হাজার

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় নিয়োগ দিতে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। ৩২ হাজার ৫৭৭ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। শূন্য এবং সৃষ্ট পদগুলোতে নিয়োগ পাবেন এই শিক্ষকেরা।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের নিয়োগ শাখার সহকারী পরিচালক আতিক বিন সাত্তার এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। অনলাইনের মাধ্যমে আগামী ২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত প্রার্থীরা এতে আবেদন করতে পারবেন বলে জানান তিনি।

এদিকে এ বিষয়ে অধিদফতরে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষকের শূন্যপদ এবং জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (পিডিইপি-৪ এর আওতায়) প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির জন্য সৃষ্ট সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ দেয়া হবে।

বেতন স্কেল উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫-এর ১৩তম গ্রেডে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ করা হবে। সহকারী শিক্ষকদের বেতন হবে জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫-এর গ্রেড ১৩ অনুযায়ী ১১০০০-২৬৫৯০ টাকা।

অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া ২৫ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে ২৪ নভেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে শেষ হবে। এই সময়ের মধ্যেই প্রার্থীদের আবেদন করতে হবে। তবে তিন পার্বত্য জেলা যেমন- রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানের প্রার্থীরা এতে আবেদন করতে পারবেন না।

শিক্ষক পদে আবেদনকারী প্রার্থীদের বয়স আবেদন শুরু হওয়ার দিনে (২০ অক্টোবর) সর্বনিম্ন ২১ বছর এবং গত ২৫ মার্চ সর্বোচ্চ ৩০ বছর হতে হবে। তবে এক্ষেত্রে কিছুটা সুবিধা দেয়া হয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদেরকে। তাদের ক্ষেত্রে হবে ২৫ মার্চে ৩২ বছরকে বয়সসীমা হিসেবে ধরা হয়েছে।

শিক্ষাগত যোগ্যতা হবে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ-সহ স্নাতক বা সম্মান বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে।

বিজ্ঞপ্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য ওয়েবসাইটে (http://dpe.teletalk.com.bd) পাওয়া যাবে।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.